Porasuna | Blog community for Educational Content

JobsNews24

The Most Popular Job Site in Bangladesh

35 BCS Written Exam: English Part-B

Category: BCS Questions Posting Date: 2016-12-10


35 BCS Written Exam
English Part-B Marks: 100

8. Write an essay in about 1000 words on any one of the following topics:- Marks: 50
(a) The Rise of Religious Extremism as a Global Threat;
( ধর্মীয় চরমপন্থার উথান বিশ্বব্যাপী একটি হুমকি )
(b) Nature Vs Nurture;
(প্রকৃতি VS প্রতিপালন)
(c) How I See Myself 10 Years From Now.
(এখন থেকে দশ বছর পর আমি নিজেকে যেভাবে দেখি)
Answer: নিয়মিত সংবাদপত্রের ফিচার এবং সম্পাদকীয় পাঠ করে প্রতিদিন কমপক্ষে ৩০ মিনিট লেখার চেষ্টা করা। এভাবে প্রায় একমাস নিয়মিত লিখতে পারলে ভাল লেখক হিসেবে গড়ে উঠবেন।

9. Translate the following passage into Bangla:-
Marks: 25
It was the best of times; it was the worst of times; it was the age of wisdom; it the age of foolishness; it was the epoch of belief; it was the epoch of incredulity; it was the season of light; it was the season of Darkness; it was the spring of hope; it was the winter of despair. We had everything before us; we had nothing before us; we were all going direct the other way-in short; the period was so far like the present one in which the noisiest authorities insisted on its being received, for good or for evil, in the superlative degree of comparison.

Answer:
এটা ছিল সময়-এর সবচেয়ে ভালো; এটা ছিল সময়-এর সবচেয়ে অসুস্থ; এটা ছিল জ্ঞান-এর বয়স; এটা নির্বুদ্ধিতার বয়স; এটা ছিল বিশ্বাস-এর সময়কাল; এটা ছিল অবিশ্বাস-এর সময়কাল; এটা ছিল আলো-এর মৌসুম; এটা ছিল অন্ধকার-এর মৌসুম; এটা ছিল আশার বসন্ত; এটা ছিল হতাশার শীত। আমাদের আমাদের আগে কার সবকিছু ছিল; আমাদের আমাদের পূর্বের কিছুই ছিলনা; আমরা সব সরাসরি যাছ্ছিলাম অন্যথায় –সংক্ষিপ্ত পথে; একটা সময় ছিল এখন পর্যন্ত বিদ্যমান -এর যেখানে ঝামেলাপূর্ণ কর্তৃপক্ষ এটার থাকা ভাল কিংবা মন্দের জন্য পাওয়া, পরমোৎকৃষ্টতার তুলনার মতামতের উপর জোর দিল।
বিঃদ্রঃ সর্বশেষ বাক্যটির আরও সুন্দর অনুবাদ হতে পারে- ভুল গুলো সংশোধন করে দিবেন।

10. Translate the following passage into English:-
Marks: 25
ষাটোর্ধ মুক্তিযোদ্ধা স্বর্ণলতা ফলিয়া কাজ করছেন বীরাঙ্গনাদের সংগঠিতকরণ ও পুনর্বাসনের। ৮ নম্বর সেক্টরের এই মুক্তিযোদ্ধা হেমায়েত বাহিনীর অধীনে যুদ্ধ করেছেন। নারিকেলবাড়ী ক্যাম্প থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে মহিলা মুক্তিযোদ্ধা সংগ্রহের পাশাপাশি নিজেও অনেক সশস্ত্র যুদ্ধে অংশ নেন। এরপর দেশ স্বাধীন হলে বীরাঙ্গনাদের পুনর্বাসনের কার্যক্রম শুরু করেন। সেই থেকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ৩৬ জন বীরাঙ্গনাকে একত্র করে তাদের চিকিৎসা, চাকরি এবং অধিকার আদায়ের কাজে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন স্বর্ণলতা।
স্বর্ণলতার জন্ম ১৯৫৪ সালের ৬ অক্টোবর গোপালগঞ্জ জেলার কোটালিপাড়া উপজেলার সোনাইলবারী গ্রামে। কৃষক বাবা নিশিকান্ত ফলিয়া ও মা মারিয়া ফলিয়ার সাত সন্তানের মধ্যে তিনি পঞ্চম। কোটালিপাড়া উপজেলার নারিকেলবাড়ী মিশনারি স্কুলের নবম শ্রেণীতে পড়ার সময় দেশে বেজে উঠে যুদ্ধের দামামা। একদিন আশালতা বৈদ্য এসে বললেন, “দেশে যুদ্ধ শুরু হচ্ছে,আমিতো যুদ্ধ করবো। তরা কে কে আমার সাথে যুদ্ধে যাবি।” –এ কথা শুনে স্বর্ণলতা চুপ থাকতে পারেনি। এক কথায়ই রাজি হয়ে গেলেন।
আশালতা বৈদ্যের সাথে যুদ্ধের ট্রেনিং নেয়ার আগে সহপাঠী বন্ধুরা মিলে এলাকায় ঘুরতেন আর মহিলা মুক্তিযোদ্ধা জোগাড় করতেন। আর সুযোগ পেলেই বন্ধুদের সাথে ঘরের মা-বোনদের নিয়ে “অস্ত্র ধরো, স্বাধীন বাংলা রক্ষা করো” স্লোগান দিতেন।
পরবর্তী সময়ে আরও ৩০ জন সদস্য নিয়ে তিনি হেমায়েত বাহিনীর কাছ থেকে অস্ত্র চালনার প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। যুদ্ধে বেশ কয়েকটি অপারেশনে অংশ নিলেও দুটি অপারেশন ছিল উল্লেখযোগ্য। এর একটিতে পাক বাহিনীর বেশ কয়েকটি লঞ্চ ডুবিয়ে দিয়েছিলেন। আর একটি অপারেশন করেছিলেন নদীতে। সেই অপারেশনে তার পাশে থাকা দুই মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হন, বীরবিক্রম হেমায়েতউদ্দিনের গালে গুলি লাগে। অল্পের জন্য সেদিন প্রাণে বেঁচে গেলেও আহত হয়েছিলেন স্বর্ণলতা।
স্বাধীনতা -পরবর্তী সময়ে আর্থিক অভাব-অনটনের কারণে ঢাকা মেডিক্যালের কাছাকাছি কাজের সন্ধান করতে থাকেন। ঘটনাচক্রে পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধা ও অসুস্থ বীরাঙ্গনাদের সহযোগিতা করার কারণেই মেডিক্যালেই দু’বেলা দুমুঠো খাবারের ব্যবস্থা হয়ে যায়। বঙ্গবন্ধু যখন বীরাঙ্গনাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করেন, স্বর্ণলতা তখন রাস্তা ও অন্যান্য জায়গা থেকে বীরাঙ্গনাদের নিয়ে আসতেন ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জের পুনর্বাসন কেন্দ্রগুলোতে। পরবর্তী সময়ে যখন বীরাঙ্গনাগণ পুনর্বাসন কেন্দ্র ত্যাগ করেন, তখনো তিনি তাদের সাহায্য করার চেষ্টা করেছেন। বিভিন্ন অফিস-আদালত ও মন্ত্রণালয়ে ঘোরাঘুরি করে বীরাঙ্গনাদের চাকরির চেষ্টা যেমন করেছেন, তেমন করেছেন তাদের চিকিৎসাসহ অন্যান্য অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে কাজ।
অন্যের কষ্টকে যিনি নিজের কষ্ট মনে করে তাঁদের পাশে দাঁড়িয়েছেন, অন্ন-বস্ত্র-বাসস্থানের ব্যবস্থা করেছেন, বীরাঙ্গনাদের সেই পরম সতীর্থ মুক্তিযোদ্ধা স্বর্ণলতা ফলিয়া নিজের সুখ-আহলাদ ও অধিকার নিয়ে ভাবেননি। একমাত্র মেয়েকে গ্র্যাজুয়েট করিয়েছেন যাতে তার মেয়ে নিজের ও অপরের অবলম্বন হতে পারেন। আজ অবধি কোন সরকারি স্বীকৃতি না-পাওয়া স্বর্ণলতা বাস করেন তেজগাঁও বস্তির ঘিঞ্জি এক ঘরে। মুক্তিযোদ্ধা স্বর্ণলতা ফলিয়ার যুদ্ধ এখনো থামেনি।

Answer:
Over sixty years old freedom fighter ‘Swarnalata Phaliya’ organizing and works of rehabilitation for heroic women. This freedom fighter of ‘sector command-8’ has fought under Hemayet forces. Training from Narikelbari camp she has collected woman freedom fighters as well as took part in the armed war. Later the country was liberated she has started the rehabilitation programme for heroic women. Since ‘Swarnalata’ assembled / brought together 36 heroic women from different regions of the country and has devoted her-self to their treatment, employment and defending the rights.
‘Swarnalata’ born on october 6, 1954 in the village of Sonailbari of Kotalipara upazila in Gopalgonj district. She is the fifth of seven children of farmer father ‘Nishikanto Phaliya’ and mother ‘Mariya Phaliya’. When she studied in the ninth grade at ‘Narikelbari Missonary School’ of Kotalipara upazila, at that time the bell rang up the trumpet. Oneday ‘Ashalota Boiddya’ said “The war is going to start, I’ll fight, who am I to escape to the war with me”. Hearing this, ‘Swarnalata’ could not keep silence. She agreed with them in one words.
Before training with ‘Ashalota Boiddya’,She visited their area with the group of class friends and had brought together woman freedom fighter. And every chance she and her friends raise slogan with home mothers and sisters –“Take up arms to defend independent Bengali”.
Subsequently, she with 30 members have received weapons training from Hemayet force. Though she took part in several operations in the war. Of them two operations was mentionable. One of them,she overthrew several launch of Pakistani forces. And another operation had on the river. On the side of the operation two of her fighters were killed and ‘Bir bikrom Hemayet Uddin’ shoted in the cheek. That day, ‘Swarnalata’ survived her life narrowly but she was injured.
Next time of liberation, due to financial poverty she looks for work closure to Dhaka medical. Eventually due to help of lame freedom fighter and sick heroic women she had to provided for food assistance and shelter in medical. When ‘Bangabondhu’ had started rehabilitation programme for heroic women then ‘Swarnalata’ took the heroic women from road and other places to the rehabilitation centers in Dhaka and Narayangonj. Later, the heroine left the rehabilitation center,yet she tried to help them. She has moved various offices and ministries for the job of heroine such as have done much work for the rights of their medical treatment.
Suffering of others as she minded her own pain and stood on their side, provided food-clothing-made accommodation the ultimate teammate of heroic women ‘Swarnalata Phaliya’ had not thought of her own happiness-delight and rights. She made her only daughter as a graduate so that daughter can be resort to her-self and others. Untill now ‘Swarnalata’ received any official recognition she lives in a crowded slum house in Tejgaon. Freedom fighter ‘Swarnalata Phaliya’s fighting had not stopped yet now.
বিঃদ্রঃ ভুল থাকা স্বাভাবিক। ভুলগুলো সংশোধন করে দিবেন। চেষ্টা করেছি Class-8/9 Standard আমাদের Vocabulary জ্ঞান প্রয়োগ করতে। নিয়মিত Translation Practice করার জন্য (অনুবাদ চর্চার জন্য ) এবং সংবাদপত্রের ফিচার, সম্পাদকীয়, বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলীর উপর ‘Free Hand Writing Practice’ এর জন্য সংবাদপত্রের
‘NewsPaPer ReaderS (Editorial and Translation for BANK and BCS )’
https://www.facebook.com/groups/1616141028634867/
Group Create করা হয়েছে। যা একসাথে দেশ ও বিদেশের শত সংবাদ পত্র ও সংবাদ মাধ্যমের বাছাই করা সর্বশেষ খবর পরিবেশন করবে। আপনার General Knowledge কে Enrich and Update করবে।…খবর, Translation Practice এর সাথে Newspaper Group এর Cover Page -এ আপনারই জন্য রাখা ‘চা’ পানের আমন্ত্রণ রইল।
Masiur Rahman
dreamofmind1985@gmail.com