Porasuna | Blog community for Educational Content

JobsNews24

The Most Popular Job Site in Bangladesh

ব্যাংক ভাইভা টার্ম (Bank viva Terms)

Category: Bank Job Posting Date: 2016-12-10


1. অর্থ মন্ত্রণালয় ( Ministry of Finance )
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের একটি মন্ত্রণালয় । বাংলাদেশ সরকারের অন্যতম এ সংস্থাটি দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন, জাতীয় বাজেট প্রণয়ন, করারোপ, অর্থ সংশ্লিষ্ট আইন, বিধি-বিধান-প্রবিধান প্রণয়ন এবং বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করে থাকে ।

2. মুদ্রা
পন্য বা সেবা আদানপ্রদানের জন্য একটি বিনিময় মাধ্যম । এটি অর্থের একটি ধরন । অর্থ হচ্ছে সেই সকল বস্তু যা বিনিময়ের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করা যায়। কারেন্সি জোন বা মুদ্রা এলাকা হচ্ছে একটি দেশ বা এলাকা যেখানে একটি নির্দিষ্ট মুদ্রাই অর্থনীতির প্রধান বিনিময় মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হয় ।
রাশিয়াতে একটি অনলাইন এন্টারটেইনমেন্ট আউটলেটে অনুষ্ঠিত এক ভোটাভুটিতে বাংলাদেশী ৳২ নোট পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর ব্যাংক নোটের মর্যাদা পেয়েছে । যেখানে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মুদ্রাও প্রতিযোগিতায় ছিল।

3. টাকা
বাংলাদেশের মূদ্রা। ১৯৭১-এ বাংলাদেশের উদ্ভবের পর দেশটির মুদ্রার সরকারী নাম হিসেবে গৃহীত হয়েছে । বাংলাদেশের টাকার প্রতীক হল ৳ । কাগজে টাকা বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক প্রবর্তিত হয়;- ব্যাতিক্রম ৳১ এবং ৳২ যেগুলো বাংলাদেশ সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে প্রচলিত হয় । টাকার ভগ্নাংশ পয়সা যার মূল্যমান ৳১-র একশত ভাগের ১ভাগ।
ভাষাবিদগণের মতানুসারে টাকা শব্দটি সংস্কৃত টঙ্ক শব্দ থেকে উদ্ভূত যার অর্থ রৌপ্যমুদ্রা । ১৯৭২ সালে বাংলাদেশ সরকার সদ্য স্বাধীন রাষ্ট্রের মুদ্রার নাম টাকা রাখে । পরবর্তীতে টাকার সংকেত হল ৳ নির্ধারণ করা হয় । এক টাকার শতাংশকে পয়সা নামে অভিহিত করা হয় । অর্থাত ৳১ সমান ১০০পয়সা । বাংলাদেশে ৳১, ৳২, ৳৫, ৳৫০, ৳১০০, ৳৫০০ এবং ৳১০০০ মুল্যমানের কাগজে টাকা প্রচলিত আছে । ৳১০০০ মূল্যমানের কাগজে নোট ২০১১ সালে প্রবর্তিত হয় ।
দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক যা বাংলাদেশ ব্যাংক নামে পরিচিত টাকার কাগজে নোট মুদ্রণ এবং মুদ্রা প্রস্তুতকরণ এবং তা বাজারে প্রচলনের জন্য দায়িত্ব প্রাপ্ত ।

4. আন্তর্জাতিক অর্থ তহবিল বা আইএমএফ ( International Monetary Fund, IMF )
জাতিসংঘ কর্তৃক অনুমোদিত স্বায়ত্তশাসিত আর্থিক প্রতিষ্ঠান । বিভিন্ন দেশের মুদ্রামানের হ্রাস- বৃদ্ধি পর্যবেক্ষণ করা এর প্রধান কাজ । এই সংস্থার কার্যক্রম শুরু হয় ১৯৪৫ সালের ২৭শে ডিসেম্বর। প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে ২৯টি দেশ চুক্তিতে উপনীত হয়েছিল । এর সদর দপ্তর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন, ডি.সি. শহরে অবস্থিত । বিভিন্ন দেশের মুদ্রানীতি এবং মুদ্রামানের হ্রাস- বৃদ্ধি পর্যবেক্ষণ করা এই আন্তজার্তিক সংস্থাটির অন্যতম প্রধান কাজ । সেপ্টেম্বর, ২০১২ইং পর্যন্ত ১৮৮টি রাষ্ট্র এই সংস্থার কার্যক্রমের আওতাভুক্ত। আইএমএফের ধারণা প্রথম সূচিত হয় ১৯৪৪ খ্রিস্টাব্দের ২২ জুলাই তারিখে । এর কার্যক্রমের গোড়াপত্তন হয় ৪৫টি সদস্য রাষ্ট্রের অর্থনীতি এবং তাদের আন্তজার্তিক লেন-দেন-এর ভারসাম্য নিয়ে নিয়ে । ১৯৪৫ খ্রিস্টাব্দের ২৭শে ডিসেম্বর ২৯টি রাষ্ট্র আন্তর্জাতিক লেন-দেন ব্যবস্থাকে স্থিতিশীল এবং নিয়ন্ত্রণযোগ্য রাখার লক্ষ্য নিয়ে একটি চুক্তিতে সাক্ষর করে। এর ভিত্তিতেই আইএমএফ আনুষ্ঠানিকভাবে স্থাপিত হয় ।
আন্তর্জাতিক ব্যবসায়-বাণিজ্যে স্থিতিশীলতা আনয়ণই এই সংস্থার মূল লক্ষ্য। আইইএমএফের একটি ‘বোর্ড অব গভর্নরস’ রয়েছে যা এই সংস্থার সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারক পর্ষদ। একজন মূল গভর্নর এবং প্রতিটি সদস্য রাষ্ট্রের জন্য একজন করে পর্যায়ক্রমিক গভর্নর নিয়ে এই বোর্ড অব গভর্নর্স গঠিত। সদস্য দেশগুলো স্ব-স্ব গভর্নর নিযুক্ত করে।

5. বাংলাদেশ ব্যাংক (Bangladesh Bank)
বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এটি বাংলাদেশ ব্যাংক অধ্যাদেশ, ১৯৭২ এর মাধ্যমে ডিসেম্বর ১৬, ১৯৭১ খ্রিস্টাব্দে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। এর কার্য নির্বাহী প্রধান ‘গভর্নর’ হিসাবে আখ্যায়িত । বাংলাদেশ ব্যাংক একটি রেগুলেটরি সংস্থা এবং কার্যতঃ ‘ব্যাংকসমূহের ব্যাংক’ ।
রাষ্ট্রের পক্ষে এটি দেশের ব্যাংকিং খাতকে নিয়ন্ত্রণ করে থাকে । দেশের মুদ্রানীতি বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক নিরূপিত হয় । এটি দেশের বৈদেশিক মুদ্রার তহবিল সংরক্ষণ করে থাকে ।
এছাড়া এটি বৈদেশিক মুদ্রার বিপরীতে বাংলাদেশী টাকার বিনিময় হার নির্ধারণ করে। ১ টাকা এবং ২ টাকার কাগুজে নোট ব্যতীত সকল কাগুজে নোট মুদ্রণ এবং বাজারে প্রবর্তন এই ব্যাংকের অন্যতম দায়িত্ব । এছাড়া এটি সরকারের কোষাগারের দায়িত্বও পালন করে থাকে ।